আয়ান-জায়ান-সুমাইয়া-আরিয়ান-রাইসা-সাদিয়া-হাসান-মিম নামের অর্থ

প্রিয় দর্শক, আজকে বাংলাদেশের কিছু জনপ্রিয় ইসলামিক নামের অর্থ নিয়ে হাজির হলাম ৷ এই নাম গুলো গুগুলে অনেক বেশি সার্চ হয় ৷ তাই ভাবলাম নামগুলো সবার মাঝে শেয়ার করা উচিৎ ৷ Name meaning from Tunetuni.

নামের অর্থ গুরুত্ব

নামে কী বা আসে যায় না , নামে অনেক কিছু যায় এবং আসেও । একটি সুন্দর ও অর্থবহ নাম রাখার পেছনে যেমন অনেক সঘন ঘটনা বা দৃশ্যরূপ থাকে তেমনি নামেই প্রকাশ ঘটে অনেক কিছুর । এই আর্টিকেলে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে মুসলিম শিশুর নির্বাচিত নাম ; যা থেকে আপনার শিশুর একটি সুন্দর নাম রাখতে উৎস হিসেবে কাজ করবে ।

” যে মাতা – পিতার মাধ্যমে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন নবজাতককে পৃথিবীতে প্রেরণ করেন , সে গর্বিত মাতা – পিতার উপরে সাত ধরনের দায়িত্ব অর্পিত হয় । সন্তান তাঁর মাতা – পিতার কাছ থেকে সাত ধরনের অধিকার দাবী করে ।

( ১ ) সন্তানের সম্মান এবং মূল্য

( ২ ) সন্তানের লালন – পালন

( ৩ ) সন্তানের সাথে উত্তম আচরণ

( ৪ ) সন্তানের প্রতি স্নেহ ও ভালোবাসা

( ৫ ) সুন্দর অর্থবহ নাম রাখা

( ৬ ) সন্তানকে সুশিক্ষা ও উত্তম প্রশিক্ষণ দান

( ৭ ) উপযুক্ত বয়সে সন্তানের বিয়ে ।

উক্ত সাতটি বিষয় সম্পর্কে আলোচনা ক্ষুদ্র পরিসরে সম্ভব নয় । সুতরাং নাম সম্পর্কেই সামান্য আলোকপাত করা যাচ্ছে । নামে মনস্তাত্ত্বিক দিক দিয়ে যেমন প্রভাব পড়ে তেমনই নামেও মানুষের ব্যক্তিত্বের প্রকাশ ঘটে । সুন্দর স্বাস্থ্যবান সুশ্রী শিশুকে সবাই আদর জানাতে চায় । কিন্তু শিশুর অর্থহীন বিশ্রী নাম শোনার পরে মনটা বিতৃষ্ণায় ভরে ওঠে ।

নামের অর্থ

আয়ান নামের অর্থ কি

গুগুলে সার্চ রেজাল্টে আয়ান নাম অর্থ কি সবথেকে বেশি দেখা যায় ৷ এ নামটি ইসলামিক ৷ নামটির একটি সুন্দর অর্থ প্রকাশ করে ৷ আয়ান নামটির অর্থ হলো সময়, যুগ, কাল , বয়স ৷ আয়ান নিয়ে মানুষ যে নামগুলো বেশি রাখে তা হলো: রাফসান ইসলাম আয়ান, মোহাম্মদ আয়ান, আয়ান চৌধুরী, মোহাম্মদ আয়ান ইত্যাদি ৷ আয়ান ইংরেজিতে লিখে Ayan.

প্রকৃত ব্যাপার হলো সুন্দর নাম অনুভূতি এবং আবেগের উপর অসাধারণ প্রভাব বিস্তার করে । কাউকে অর্থহীন বিশ্রী নামে সম্বোধন করা হলে তার মধ্যে ক্রোধের প্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যায় । আবার সুন্দর নামে সম্বোধন করা হলে তার মধ্যে কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসার প্রকাশ ঘটতে দেখা যায় । নিজের উত্তম নাম শুনে সে নিজেকে গর্বিত – মর্যাদাবান মনে করে ।

জায়ান নামের অর্থ কি

জায়ান নামটির অর্থ অলংকার, মাধুর্য ৷ জায়ান ইসলামিক নাম ৷ যারা ছোট বাচ্চাদের সুন্দর একটি নাম রাখতে চান তারা জায়ান নামটি নার্বাচন করতে পারেন ৷ কারন নামটি বর্তমানে খুবুই জনপ্রিয় ৷ এ নামটির আরও কিছু নাম হলো জায়ান আহমেদ, জায়ান রহমান, জায়ান চৌধুরি, মেহেদি হাসান জায়ান, জামিল হোসেন জায়ান, জায়ান হক, শেখ জায়ান, জায়ান ইকতিদার ইত্যাদি ৷ জায়ান নামটির ইংরেজি হলো Jayan.

মানুষ আল্লাহ তা’য়ালার সৃষ্টির সেরা জীব । সৃষ্টির প্রথম থেকে এ পর্যন্ত অসংখ্য মানুষ জন্ম গ্রহণ করেছে এবং ভবিষ্যতেও করবে । মানুষ প্রকৃতিগতভাবে সামাজিক জীব । এ কারণেই পরস্পরের মধ্যে পরিচিতি ও প্রভেদ বিভক্তির উদ্দেশ্যে সৃষ্টির সূচনা থেকে নামকরণের প্রচলন হয় ।

সুমাইয়া নামের অর্থ কি

সুমাইয়া নামটিও অনেক সুন্দর এবং অর্থবহ ৷ বাংলাদেশের অধিকাংশ মেয়ের নাম সুমাইয়া রাখা হয়েছে ৷ মেয়েদের সুন্দর কতগুলো ইসলামি নামটির মধ্যে সুমাইয়া একটি ৷ আপনিও আপনার সোনামনির জন্য নামটি রাখতে পারেন ৷ সুমাইয়া নামটির অর্থ সুনাম,সুখ্যাতি,সুউচ্চসুমাইয়া আরবি শব্দ ৷ সুমাইয়া নামটির ইংরেজি হলো Sumaiya. সুমাইয়া নামটির সাথে আরও কিছু নাম সুমাইয়া সরকার, সুমাইয়া খাতুন, সুমাইয়া রহমান, সুমাইয়া চৌধুরী, সুমাইয়া মুহাম্মদ, সুমাইয়া হাসান ইত্যাদি ৷

নামের মাধ্যমে মানুষ শুধু চিহ্নিতই হয় না । তার গোষ্ঠিগত ও পারস্পরিক পরিচয়ও ফুটে ওঠে । তাছাড়া অনেক ক্ষেত্রে তাদের চিন্তা , চেতনা ও মানসিকতার উপর প্রভাব ফেলে এবং এই নামের দ্বারা মানুষের ব্যক্তিত্বেরও বিকাশ ঘটে ।

আরিয়ান নামের অর্থ কি

বাংলাদেশের অধিকাংশ ছেলের নাম আরিয়ান রাখা হয়েছে ৷ নামটি জনপ্রিয় ৷ আরিয়ান অর্থ যোদ্ধা ৷আরিয়ান নামটির ইংরেজি ভার্সন Arian. আরিয়ান নামটি ইসলামিক ৷ তাই যারা ইসলামিক নাম পচন্দ করেন তারা নামটি নির্দিধায় রাখতে পারেন ৷ এ নামটির সাথে রয়েছে আরিয়ান খান্না, আরিয়ান প্রিন্স, আরিয়ান রিফাত, আরিয়ান সুজন ইত্যাদি ৷

সুতরাং নামের প্রভাব অত্যন্ত ব্যাপক ৷ মানুষ সন্তানকে সুন্দর নামে সম্বোধন করবে- এটাই প্রতিটি পিতা – মাতার মনের স্বাভাবিক আকাংখা । সুন্দর নামে যাকে ডাকা হয় , সে খুশী হয় । অপর দিকে যিনি ডাকেন তাঁর মনেও অনাবিল আনন্দ অনুভূতির সৃষ্টি হয় । কিন্তু এটা তখনই সম্ভবপর হয়ে ওঠে , যখন আপনি আপনার আদরের সন্তানের জন্যে সুন্দর অর্থবহ নাম নির্বাচন করবেন । প্রতিটি পিতা – মাতার উপরে সন্তানের অধিকার হলো- পিতা – মাতা তাঁর একটি সুন্দর নাম রাখবে ।

রাইসা নামের অর্থ কি

রাইসা নামটিও জনপ্রিয় ৷ রাইসা নামটির অর্থ রানী ৷ রাইসা ইসলামিক আরবি নাম ৷ রাইসার আরও কিছু অর্থ রয়েছে ৷ যেমন: প্রধান, মালিক, নেতা, মাথা ইত্যাদি ৷ আপনি আপনার কন্যার জন্য নামটি রাখতে পারেন ৷ রাইসা নামটির ইংরেজি হলো Raisa. আরও কিছু নাম তাসমিম রাইসা, রূবাইয়া রাইসা, সামিহা রাইসা, রাইসা সুলতানা ইত্যাদি ৷

লোকটি কোন ধর্মের এ প্রশ্নের মীমাংসা যেখানে তাৎক্ষণিক ভাবে একমাত্র তার নামই দিতে সক্ষম , সেখানে মুসলিম পরিবারের শিশুর নামকরণ অবশ্যই ইসলামী হওয়া বাঞ্ছনীয় ।

সাদিয়া নামের অর্থ কি

সাদিয়া অর্থ ভাগ্য, সুখী ৷ সাদিয়া নামটি খুবই সুন্দর একটি ইসলামিক নাম। সাদিয়া শব্দটি আরবি ৷ সাদিয়া শব্দের ইংরেজি Sadiya. এ নামটির সাথে রয়েছে সাদিয়া হাসান, সাদিয়া আলম, সাদিয়া সুলতানা, সাদিয়া মুহাম্মদ, সাদিয়া আক্তার, সাদিয়া খান, সাদিয়া সরকার, উম্মে আক্তার সাদিয়া ইত্যাদি ৷

ইসলামে নামের রুত্ব অপরিসীম । তাই ইসলাম নামের ব্যাপারে মুসলমানদেরকে বিশেষভারে যত্নবান হতে তাকিদ দিয়েছে । মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন , সন্তান জন্ম গ্রহণের পর তার ভাল নাম রাখা পিতা – মাতার জন্য অপরিহার্য কর্তব্য ও দায়িত্ব । তিনি আরো বলেছেন , তোমরা নাম রাখ আমার নামের সাথে ।

হাসান নামের অর্থ কি

হাসান নামটি বাংলাদেশে একটি জনপ্রিয় নাম ৷ নামটি অনেকেই এর অর্থ খোজে থাকে ৷ হাসান অর্থ সুদর্শন, ধার্মিক, সুন্দর ইত্যাদি ৷ হাসান নামটির ইংরেজি Hasan. নামটি ইসলামিক ৷ তাই ইচ্ছা করলে আপনার ছেলে সন্তানের জন্য নামটি রাখতে পারেন ৷ হাসান সাথে রয়েছে হাসান আহমেদ, হাসান মাহতাব, আল হাসান ইত্যাদি ৷

অর্থাৎ তোমাদের নামটি উচ্চারণ করার সাথে সাথে যেন বুঝা যায় যে , তোমরা মুহাম্মদের অনুসারী । দুঃখের বিষয় আধুনিক সভ্যতার নাগপাশে আবদ্ধ তথা কথিত প্রগতিবাদীরা নিজেদের সন্তানদের এমনসব নাম রাখেন যা কোন সময় ইসলামী নাম তো নয়ই বরং কোনটির না থাকে অর্থ , না থাকে মাহাত্ম্য ।

মিম নামের অর্থ কি

মিম বাংলাদেশে মেয়েদের সুন্দর কতগুলো নামটির মধ্যো একটি ৷ অনেক মায়ে তার কন্যা সন্তানের জন্য নামটি রেখে থাকেন ৷ নামটি যেমন ছোট তেমনি অর্থবহ ৷ মিম অর্থ তেতো ৷ মিম ইংরেজি Mim. মিম সাথে রয়েছে মিম সুলতানা, মিম খন্দকার, মিম হাসান, আফিয়া মিম, মিম চৌধুরী ইত্যাদি ৷

ফলে সন্তানটি কোন ধর্মাবলম্বী তা বুঝাই যায় না । আসলে আরবী ভাষাভাষি অর্থপূর্ণ নাম হলো ইসলামী নাম । তাছাড়া অনুষঙ্গী ভাষা ফার্সীর অর্থপূর্ণ নামগুলোকেও মুসলিম নামের আওতাভূক্ত বলা যায় । আমাদের দেশের অনেক অভিভাবককে এমন দেখা যায় যে , তাদের সন্তানদের ইসলামী নাম রাখার আন্তরিক ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও বিভিন্ন কারণে সংকটে পড়েন । একটি ভাল , সুন্দর , অর্থপূর্ণ নাম রাখতে গলদঘর্ম হন । Also Link

আরও কিছু জনপ্রিয় নাম অর্থ

তানহা নাম অর্থ কি

নুসাইবা নাম অর্থ কি

আরিশা নাম অর্থ কি

জান্নাত নাম অর্থ কি

মরিয়ম নাম অর্থ কি

সাজেদা নাম অর্থ কি

রাফি নাম অর্থ কি

তানিয়া নাম অর্থ কি

আহনাফ নাম অর্থ কি

হুমায়রা নাম অর্থ কি

তাসনিম নাম অর্থ কি

আবির নাম অর্থ কি

আয়াত নাম অর্থ কি

মাহিন নাম অর্থ কি

ফাইজা নাম অর্থ কি

খাদিজা নাম অর্থ কি

সুমি নাম অর্থ কি

তাসফিয়া নাম অর্থ কি

FAQ

আয়ান নামের অর্থ হলো সময়, যুগ, কাল , বয়স

জায়ান নামের অর্থ হলো বিজয়, সৌন্দর্য

সুমাইয়া নামের অর্থ হলো সুনাম,সুখ্যাতি,সুউচ্চ, সমুন্নত,স্বতন্ত্র চিহ্ন বা নিদর্শনের অধিকারী

আরিয়ান নামের অর্থ হলো যোদ্ধা

রাইসা নামের অর্থ হলো প্রধান, মাথা

সাদিয়া নামের অর্থ হলো ভাগ্য, সুখী

হাসান নামের অর্থ কি সুদর্শন, ধার্মিক ,সুন্দর, সুশ্রী, ভদ্র, উত্তম মানুষ

মিম নামের অর্থ হলো তেতো

তানহা নামের অর্থ হলো খোদার উপহার

নুসাইবা নামের অর্থ হলো সৌভাগ্যবতী

আরিশা নামের অর্থ হলো সিংহাসন

জান্নাত নামের অর্থ হলো উদ্যান, বাগান

মরিয়ম নামের অর্থ হলো আল্লাহভক্ত, পবিত্র

সাজেদা নামের অর্থ হলো ধার্মিক বা ধর্মবিশ্বাসী

রাফি নামের অর্থ হলো উদার, শ্রেষ্ঠ,উন্নতচরিত্র

তানিয়া নামের অর্থ হলো কন্যা, মেয়ে, নারী, পরী ,রাজকুমারী

আহনাফ নামের অর্থ হলো হাদিস বর্ণনাকারীদের একজন

হুমায়রা নামের অর্থ হলো সামান্য লাল জিনিস

error: Content is protected !!